নানা আয়োজনে সম্পন্ন হলো ছাগলনাইয়া প্রেস ক্লাবের ঈদ আড্ডা ও আনন্দ ভ্রমণ

আপডেট : July, 17, 2016, 7:09 pm

 

বিশেষ প্রতিনিধি->>>

নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে শুক্রবার শেষ হয়েছে ছাগলনাইয়া প্রেস ক্লাবের ঈদ আড্ডা ও আনন্দ ভ্রমণ। ওইদিন ঘড়ির কাটায় ছুঁই ছুঁই বিকেল ৪টায় ছাগলনাইয়া প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে প্রেস ক্লাবের সভাপতি কামরুল হাসান লিটনের নেতৃত্বে ৮টি মোটর বাইকে করে সদস্যরা রওয়ানা দেয় নির্দিষ্ট গন্তব্যে। ৪টা ২০ মিনিটে সদস্যরা পৌঁছে যায় ছাগলনাইয়ার শুভপুর ইউনিয়নে অবস্থিত ঐতিহাসিক স্মৃতি নিদর্শন ভাটির বাঘ শমসের গাজীর রাজপ্রাসাদে। সেখানে তারা এক খুইল্লা দিঘী, শমসের গাজীর রাজপ্রাসাদ এলাকায় পুকুরে যাওয়ার সুড়ঙ্গ পথ ও পাহাড়ী মনোমুগ্ধকর দৃশ্য উপভোগ করেন। শমসের গাজীর ধ্বংসপ্রাপ্ত রাজপ্রাসাদে দীর্ঘদিন ধরে দোকানদারি করে আসছেন কাজী ফয়েজ চাচা। ফয়েজ চাচার কামরাঙ্গার আচারের কথা সদস্যগণ কখনও ভুলতে পারবেনা। বার বার খাওয়ার কথা মনে পড়বে। সেখান থেকে সদস্যরা ফটোসেশন শেষে রওয়ানা দেয় জগন্নাথ সোনাপুরে অবস্থিত বাঁশের কেল্লা রিসোর্টে। বিকেল গড়িয়ে সন্ধা হলে সদস্যরা বাঁশের কেল্লা রিসোর্টে পৌঁছে। সেখানে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা প্রেস ক্লাবের সদস্যদের অভ্যর্থনা জানায়। সন্ধা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত একটানা চলে খোশ গল্প, আনন্দ আড্ডা ও খানাপিনা। রিসোর্টের কর্মকর্তারা ক্লাবের সদস্যদেরকে রিসোর্টের বিভিন্ন কার্যক্রম ঘুরে দেখান। মাঝে মাঝে ক্লাবের সদস্য গাজী রাজ্জাক হোসেন সুমনের গলা ছেড়ে গাওয়া গান সবাইকে অভিভ‚ত করে। এছাড়া সদস্য জিকু চৌধুরীর বিভিন্ন হাস্যকর কথায় সবাই উল্লাসে ফেটে পড়েন। ক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির লিটন বিভিন্ন মজার মজার গল্প সবাইকে মাতিয়ে তোলেন। প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক আউয়াল চৌধুরী মনোমুগ্ধকর গান গেয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেন। পাশাপাশি ওই এলাকার চৌধুরী বাড়ীর হালিম ভাইয়ের বাসায় বিভিন্ন আপ্যায়নের কথা সদস্যরা কখনো ভুলবেনা। রাত ১০টার দিকে প্রেস ক্লাবের প্রচার সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন পাটোয়ারী প্লেস ক্লাবের জমকালো ঈদ আড্ডা ও আনন্দ ভ্রমনের সমাপ্তি ঘোষনা করেন।