সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রীর কাছে ফেনীর দক্ষিণাঞ্চলের মানুষদের পক্ষ থেকে খোলা চিঠি

আপডেট : September, 7, 2016, 6:23 pm

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী নোয়াখালীর কৃতি সন্তান (সফল মন্ত্রী) ওবায়দুল কাদেরের প্রতি ফেনীর দক্ষিণাঞ্চলের মানুষদের পক্ষ থেকে খোলা চিঠি,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,
কাদের ভাই আপনার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলছি। আপনী আমাদের বৃহত্তর নোয়াখালীরই সন্তান নয় শুধু। আপনী সারা বাংলাদেশের জনগণের গর্ব। আপনার মত একজন সৎ, নিষ্ঠা ও কর্মপরায়ণ মানুষ পেয়ে আমরা বৃত্তর নোয়াখালীর জনগণ গর্ববোধ করি। আপনী সফল মন্ত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একজ আস্থাভাজন ব্যক্তি। ফেনীর আপামর জনতার পক্ষ থেকে আপনার কাছে জনসার্থে একটি দাবি উত্থাপন করছি। মহাসড়কে দুর্ঘটনা কমাতে আপনী মহাসড়কে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ করেছেন। আপনার কথা এবং সিদ্ধান্ত আজ বাংলাদেশের আইনে পরিণত হয়েছে। আমরা এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাই। আমাদের ফেনীর রাজনৈতিক ও ভৌগলিক উন্নয়নেও আপনার অবদান অবিস্মরণীয়। ফেনীর দক্ষিণাঞ্চলের মানুষদের দুঃখ – দুর্দশা আপনী স্বচক্ষে দেখলে অনুধাবন করতে পারবেন। ফেনীর দক্ষিণাঞ্চলের মানুষদের ফেনী শহরে সিএনজি অটোরিক্সা নিয়ে ঢুকতে দেয়না ফেনীর পুলিশ। ফেনী বাসী পুলিশ সুপার কে এ বিষয়ে বললে তিনি আপনী তথা রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্তের কথা বলে ফেনী শহরে সিএনজি অটোরিক্সা প্রবেশে অনুমতি দেননি। তবে এখানে একটি বিষয় লক্ষ্যণীয় প্রতি গাড়ি থেকে মাথাপিছু ২০০ টাকা চাঁদা নিয়ে অনেক গুলো গাড়ি শহরে প্রবেশ করতে সুযোগ করে দেয় কর্মরত পুলিশ সদস্যরা। এ ছাড়া কখনে কখনো গাড়ি আটক করে নিয়ে ৭০০০ হাজার টাকা আদায় করা হয়। যা পুলিশ সুপারও হয়ত জানেন না। ফেনীর দক্ষিণাঞ্চলের হাজার-হাজার মানুষ প্রতিনিয়ত ফেনী শহরে আসতে হয়। স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় গামী শিক্ষার্থীদের কষ্টের সীমা নেই। এ ছাড়া রোগী আনা নেয়া তথা ক্ষুদে ব্যবসায়ীদের মালামাল আনা – নেয়ার ক্ষেত্রেও চরম কষ্ট পোহাতে হয়। কারণ প্রতিদিন ক্ষুদে ব্যবসায়ীরা তাদের মালামাল আনা- নেয়ার জন্য ফেনী শহরে আসতে হয়। এ অঞ্চলে সিএনজি অটোরিক্সা হচ্ছে পরিবহনের সহজ মাধ্যম। প্রতিদিন যতগুলো পুলিশ দিয়ে পাহারা বসানো হয়, তার চেয়ে কম সংখ্যক পুলিশ দিয়ে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ করে গাড়ি গুলো শহরে প্রবেশের সুযোগ করে দিলে শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ী সহ সব শ্রেণি- পেশার মানুষের দুঃখ – কষ্ট কমে যেত। মাত্র ৫০/১০০ গজ দুরত্বে মহাসড়ক ক্রস করে ফেনী শহরের দিকে সিএনজি অটোরিক্সা প্রবেশ করতে দিলে পুলিশী বাণিজ্য, দুর্নীতি ও হয়রানি কমে যাবে। আপনার রাজনীতি যদি জনসার্থে হয়ে থাকে তা হলে আশা করি ফেনীর দক্ষিণাঞ্চলের মানুষদের জন্য চলাচলের সুবিধার্থে লালপোল ক্রস করে ফেনী শহরে সিএনজি অটোরিক্সা প্রবেশে সুযোগ করে দেবেন। বা পুলিশ সুপারকে আদেশ করবেন। এতদঞ্চলের মানুষ গুলো আর্থিক ও শারীক ভাবে মারাত্মক হয়রানির শিকার হচ্ছে। ফেনীর দক্ষিণাঞ্চলের মানুষদের দুঃখ – দুর্দশা লাগবে আপনার সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করছি। মহাসড়কে চলাচল নয়, শুধুমাত্র করিডর টুকু ক্রস করে গাড়িগুলো চলাচলের সুযোগ দিয়ে এ দরিদ্র জন গোষ্ঠীকে আপনীই পারবেন হয়রানি থেকে বাঁচাতে। ঈদের আগেই যদি এ সুযোগটুকু করে দেন তাহলে আপনার কাছে ফেনীবাসীর পক্ষ থেকে চির কৃতজ্ঞ থাকব।
জাবেদ হোসাইন মামুন, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী।০১৮১৮৩৪৭৫২১