স্লোগান দিয়ে গুলি করে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমন হবেনা-ওলামা বাজার মাদ্রসার মুহাদ্দিস

আপডেট : September, 15, 2016, 6:07 pm

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>
ওলামা বাজার মাদ্রাসার প্রধান মুফতি, সেক্রেটারী ও মুহাদ্দিস মাও. আহমদ করিম (র.) এর জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভা ও ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, বর্তমানে দেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে সরকারের গৃহিত পদক্ষেপকে স্বাগত জানাতে পারিনা। স্লোগান দিয়ে গুলি করে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমন হবেনা। প্রকৃত ইসলামী শিক্ষার মাধ্যমে আদর্শ সন্তান, আদর্শ ছাত্র ও আদর্শ নাগরিক গঠনের মাধ্যমে একমাত্র জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমন সম্ভব হবে। মাদ্রাসার কোন ছাত্র জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস করেছে এমন কোন প্রমাণ নেই। কিছু কিছু বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্র ও শিক্ষকরা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের সাথে জড়িত। মাদ্রাসার শিক্ষক ও ছাত্ররা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস মুক্ত আদর্শ সমাজ গঠনের জন্য মসজিদে মসজিদে ইমামতি করছে। আর আদর্শ সমাজ গঠনে কাজ করে যাচ্ছে। ইসলামী আন্দোলনের মাধ্যমে আমরা আদর্শ সমাজ ও আদর্শ রাষ্ট্র উপহার দিতে চাই। মুহাদ্দিস মাও. আহমদ করিম ছিলেন একজন বহুমাত্রিক গুণের অধিকারী। রাসুল (সা.) এর আদর্শে আদর্শিত একজন মানুষ। যার মধ্যে ছিল জ্ঞানের ভান্ডার। তিনি দীর্ঘ ৬১ বছরের শিক্ষকতা জীবনে কখনো অন্যায়ের কাছে মাথা নত করেননি। আদর্শ মানুষ গড়ার কাজে নিয়োজিত থেকে জ্ঞানের আলো ছড়িয়েছেন। তার জীবদ্দশায় বহু ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে গেছেন। তিনি এক একটি ছাত্রকে দেশের ভবিষ্যতের জন্য বীজ হিসবে বপন করে গেছেন। তিনি শিক্ষকতার পাশাপাশি ইসলামী আদর্শে একজন সফল রাজনীতিবিদ ছিলেন। ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠার জন্য আমৃত্য সংগ্রাম করে গেছেন। পারিবারিক ও সামাজিক জীবনেও তিনি ছিলেন সফল ব্যক্তিত্ব। তার রেখে যাওয়া ৭ ছেলে ৬ কন্যা ও জামাতারা ইসলাম শিক্ষায় উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে স্ব-স্ব কর্ম ক্ষেত্রে সবাই সফলতার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন। তার রেখে যাওয়া সন্তানরা আদর্শ নাগরিক হিসেবে আজ প্রতিষ্ঠিত। তার জীবদ্দশায় অনেক গুলো কিতাব রচনা করে গেছেন। যার মাধ্যমে তিনি চিরদিন আলেম সমাজের মাঝে বেঁচে থাকবেন। তার স্মৃতি, জীবন ও কর্ম ধরে রাখার জন্য বক্তারা তার পরিবারের সদস্য ও ছাত্রদের প্রতি আহ্বান জানান।
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সোনাগাজী শাখার উদ্যোগে বৃহস্পতিবার বিকালে সোনাগাজী কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে বক্তারা এসব কথা বলেন। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সোনাগাজী শাখার সভাপতি মাও. গোলাম সারোয়ার সিরাজীর সভাপতিত্বে ও হাফেজ আবদুর রহমান ফরহাদের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, ঢাকা মালিবাগ জামিয়া শরইয়্যাহ মাদ্রাসার শাইখুল হাদীস মাও. আবু সাবের মো. আবদুল্লাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, মরহুমের জ্যোষ্ঠ পুত্র ঢাকা মহাখালী জামেয়া ইব্রাহীমিয়া মাদ্রাসার শাইখুল হাদীস মাও. আবু তৈয়ব মো. আবদুল বাকী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মাও. আতাউর রহমান আরেফি, চট্রগ্রাম জামেয়া দারুল মায়ারিফ মাদ্রাসার শিক্ষা পরিচালক ড. শহীদুল্লাহ কাউসার, মারকায উমর মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাও. নুরুল করিম, ওলামা মাশায়েখ আইয়েম্মাহ পরিষদের ফেনী জেলা শাখার মহাসচিব মাও. আবদুর রাজ্জাক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সোনাগাজী শাখার উপদেষ্টা মাও. আহমদুল হাসান মাসুদ, মাও. ইসমাইল আল হাবিব, ফেনী প্রেসক্লাবের প্রচার সম্পাদক জাবেদ হোসাইন মামুন, জাতীয় শিক্ষক ফোরাম ফেনী জেলা শাখার আহবায়ক মুফতি আবদুল কাইয়ুম সোহাইল, আরব আমিরাতের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ইমাম মাও. হাসান রহমানী, মাও. হোসাইন কারিমী, সোনাগাজী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাও. নাছির উদ্দিন, জোতিষ ভাস্কর জী কিবরিয়া, সোনাগাজী প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক হাফেজ হিজবুল্লাহ এবং হাফেজ জাকারিয়া।