সোনাগাজীর নবাবপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুরে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলনে বাধা দেয়ায় দুর্বৃত্তদের গুলিতে আহত ৩

আপডেট : October, 16, 2016, 1:10 pm

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>

ফেনী ও সোনাগাজীর কালিদাস পাহালিয়া নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে বাধা দেয়ায় রোববার সকালে নাবাবপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর এলাকাবাসীর উপর গুলি চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
এতে মিজানুর রহমান(৩৭), জাহাঙ্গীর আলম(৩৫) ও মানিক(২৪) নামে ৩ গ্রামবাসী গুলিবিদ্ধ হয়েছে। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। এলাকাবাসী, পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ফেনী সদরের ফরহাদ নগর ও সোনাগাজীর নবাবপুর ইউনিয়ের পাশ দিয়ে বয়ে যায় কালিদাস পাহালিয়া নদীতে গত ৩ দিন ধরে রঘুনাথপুর এলাকার মোবারক ঘোনায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে ফাজিলপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা মজিবুল হক রিপন এবং ফরহাদ নগর ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন টিপুর লোকজন। এতে ওই এলাকায় ভাঙনের আশংকা দেখা দেয়। রবিবার সকালে দুর্বৃত্তরা ড্রেজার মেশিনসহ ৫ টি ট্রলার নিয়ে ওই স্থানে গিয়ে বালু উত্তোলনকালে রঘুনাথপুরবাসী বাধা দেয়। এতে বাধা ডিঙ্গিয়ে ৩ টি ট্রলার বালি ভর্তি করে মহুরীগঞ্জ ব্রিজ এলাকায় চলে যায়। বাকি ২ টি ট্রলারে বালি উত্তোলনকালে এলাকাবাসী বাধা দিলে ট্রলারে থেকে পেটকাটা বেলালের নেতৃতে ১২/১৩ জন সন্ত্রাসি গ্রামবাসীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে ওই গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে মিজানুর রহমান, তাহের আহম্মদের ছেলে জাহাঙ্গির আলম ও শাহ আলমের ছেলে মানিক গুলিবিদ্ধ হয়। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মো. হুমায়ুন কবির জানান, ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা বিদর্শী সম্বৌধী চাকমাসহ পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।