আ.লীগের নতুন কমিটি থেকে বাদ পড়লেন যারা

আপডেট : October, 30, 2016, 3:24 am

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>

আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক কমিটির ১৯ নেতার জায়গায় হয়নি নতুন কমিটিতে। এদের মধ্যে সভাপতিমণ্ডলী থেকে বাদ পড়েছেন দুই জন। সম্পাদকমণ্ডলী থেকে ছয় জন এবং কার্যনির্বাহী সদস্য থেকে বাদ পড়েছেন ১১ জন। এদের মধ্যে দুই জনের জায়গা হয়েছে দলের উপদেষ্টা পরিষদে। বাকিরা নেই কোথাও।
গত ২২ ও ২৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচনের পর পর ঘোষণা করা হয় দলের সভাপতিমণ্ডলীর ১৪ নাম। দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদাধিকার বলেই এই পর্ষদের সদস্য। গত কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নূহ উল আলম লেনিন ও সতীশ চন্দ্র রায় যে বাদ পড়েছেন, সেটা সেদিনই জানা গিয়েছিল।
শনিবার দলের সাত সদস্যের নাম বাদ রেখে ঘোষণা করা কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণার দিন ঘোষণা হয় দলের উপদেষ্টা পরিষদ, সংসদীয় বোর্ড এবং স্থানীয় সরকার, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ মনোনয়ন বোর্ডও। এর মধ্যে উপদেষ্টা পরিষদে সতীশ চন্দ্র রায় এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সাবেক সম্পাদক ইয়াফেস ওসমানের স্থান হলেও অন্য কোনো কমিটিতে জায়গা হয়নি ১৭ জনের।
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সাবেক সদস্য নূহ উল আলম লেনিন বলেন, ‘দলের স্বার্থে নীতি নির্ধারকরা যা সঠিক মনে করেছেন, তাই করেছেন। আমি কখনও পদের জন্য রাজনীতি করি না। পদ না থাকলেও আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কাজ করে যাবো।

সম্পাদকমণ্ডলী থেকে যারা বাদ পড়েছেন
সাংস্কৃতিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান নূর, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ সম্পাদক বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইয়াফেস ওসমান, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক এ বি তাজুল ইসলাম, অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদক আ হ ম মুস্তফা কামাল, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক ছিলেন দেওয়ান শফিউল আরেফিন টুটুলের নাম ঘোষণা হয়নি নতুন কমিটিতে।
আন্তর্জাতিক, তবে যুব ও ক্রীড়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এবং উপ-দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক পদটি ফাঁকা রয়েছে। যারা বাদ পড়েছেন, তাদের মধ্যে এক থেকে দুই জনের নাম যোগ হলেও হতে পারে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতারা।

কার্যনির্বাহী সদস্য থেকে যারা বাদ
ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান, সুভাষ চন্দ্র বোস, সংসদ সদস্য এ কে এম রহমতউল্লাহ, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী, সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ সম্ভু, অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ, মমতাজ উদ্দিন মেহেদী, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাভেদের নামও বাদ পড়েছে কার্যনির্বাহী সদস্য থেকে।