সোনাগাজীতে ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

আপডেট : May, 4, 2019, 11:41 am

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>

সোনাগাজীতে ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে প্রায় অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, রবি ফসল ও বৈদ্যুতিক খুঁটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে বিভিন্ন ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রামগুলোতে। সকাল ৯টার দিকে বঙ্গোপসাগরের তীরবর্তী উপকূলীয় উপজেলা সোনাগাজীতে ঝড়ো হাওয়ার সাথে প্রচন্ড বৃষ্টিপাত হয়। বেলা ১১টা পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় ফণির এই তান্ডব লীলা চলে। স্বাভাবিকের চেয়ে প্রায় ফুট উঁচুতে জোয়ারের পানি প্রবাহিত হয়। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ব্যাপক প্রচারণার ফলে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে প্রায় ১৫হাজার নারী, পুরুষ ও শিশু আশ্রয় নেয়। নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয় গবাদি পশুগুলো। উপজেলা প্রশাসন থেকে শুকনা খাবার বিতরণ করা হয়। নিজদের সম্পদ আর গবাদি পশুগুলো রেখে অনেই আশ্রয় কেন্দ্রে না গেলেও বড় ধরণের বিপদ থেকে রক্ষা পেয়েছে উপকূলীয় উপজেলার জনগণ। সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সোহেল পারভেজ জানান, উপজেলার সোনাগাজী, চরচান্দিয়া, আমিরাবাদ ও চরদরবেশ সহ ৪টি ইউনিয়নে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। প্রাথমিকভাবে প্রায় ৫০টি ঘর বিধ্বস্ত, রবি ফসল ও বৈদ্যুতিক খুটি সহ প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে। গাছপালা ও গবাদি পশুর তেমন কোন ক্ষতি হয়নি।
সোনাগাজী পল্লী বিদ্যুত সমিতির ডিজিএম মো. আবু সাঈদ জানান, ঘুর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে প্রায় ১০টি বৈদ্যুতিক খুটি হেলে বা ভেঙ্গে পড়েছে। বিদ্যুত কর্মীরা বিদ্যুত সঞ্চালনে কাজ করছেন। বিচ্ছিন্নভাবে কয়েকটি গ্রাম ছাড়া নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহ করা হয়েছে।
জাবেদ হোসাইন মামুন
০১৮১৮৩৪৭৫২১