সোনাগাজীতে আ’লীগ নেতার জমি জবর দখলের পাঁয়তারা, হয়রানির অভিযোগ

আপডেট : June, 15, 2019, 5:31 pm

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>
ফেনীর সোনাগাজীতে নুর ইসলাম নামে এক অসুস্থ্য আ.লীগ নেতার মালিকীয় দখলীয় জমি জবর দখলের পাঁয়তরা করছে আবুল হাসেম গং নামে একটি ভূমিদস্যু চক্র। আ.লীগ নেতাকে মানসিকভাবে চরম কষ্টে রেখেছেন ওই চক্রটি। এলাকাবাসী, পুলিশ ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়,
সোনাগাজী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারন সম্পাদক নূর ইসলামকে ১৯৮৮-৮৯ সালে দক্ষিণ পূর্ব চরচান্দিয়া মৌজায় এক একর জমি বন্দোবস্ত দেন সরকার বাহাদুর। পরবর্তীতে সরকারী সার্ভেয়ার সরজেমিনে গিয়ে উক্ত জমির দখল বুঝিয়ে দেন। তিনি উক্ত জমি দখলে থেকে চাষাবাদ করে আসছেন। তিনি অসুস্থ্য হওয়ায় জমটির উপর লোপুপ দৃষ্টি পড়ে আবুল হাসেম গং নামে স্থানীয় একটি ভূমি দস্যু চক্রের। সাম্প্রতিক সময়ে জমিটি সংস্কার করতে গেলে আবুল হাসেম গং সংস্কার কাজে বাধা দেয়। পরবর্তীতে নূর ইসলাম বাদী হয়ে আবুল হাসেম গংদের বিরুদ্ধে সোনাগাজী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। থানা পুলিশ কাগজপত্র পর্যালোচনার জন্য দুই পক্ষকে থানায় হাজির হয়ে কাগজ পত্র প্রদর্শন করে সালিশী বৈঠকের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তির আহবান করে। নূর ইসলাম তার মালিকানার স্বপক্ষের কাগজপত্র নিয়ে থানায় হাজির হলেও থানা পুলিশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে থানায় হাজীর না হয়ে উল্টো নূর ইসলামকে হুমকি দিতে থাকে। শুক্রবার সকালে নূর সংশ্লিষট জমিতে সংস্কার কাজ শুরু করলে আবুল হাসেম গং থানায় একটি পিটিশন দায়ের করে। পুলিশ তার সংস্কার কাজ বন্ধ করে দেন। আগামী ২৫জুন বিষয়টি মীমাংসার জন্য দুই পক্ষকে থানায় ডাকা হয়েছে। নূর ইসলাম দাবী করেন,দক্ষিণ পূর্ব চরচান্দিয়া মৌজার ৬৪০১/৭২/২ খতিয়ানের আন্দরে মোট এক একর জমি ফেনীর জেলা প্রশাসক নূর ইসলামকে বন্দোবস্ত দেন। বন্দোবস্তীয় মালিক ও ভোগ দখলকার হিসেবে বাংলাদেশ জরিপে নূর ইসলামের রেকর্ডভুক্ত হয়। এরপরও ভূমি দস্যু চক্রটির হয়রানি ও হুমকিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন অসুস্থ্য আ.লীগ নেতা নূর ইসলাম।