সোনাগাজীতে জমির বিরোধ নিয়ে অন্ত:সত্ত্বা নারী ও তার স্বামীকে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষ ও ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা

আপডেট : June, 27, 2019, 7:08 am

জাবেদ হোসাইন মামুন- >>>

সোনাগাজীতে জমির বিরোধ নিয়ে অন্ত:সত্ত্বা নারী ও তার স্বামীকে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষ ও ভাড়াটে সন্ত্রাসীরাজাবেদ হোসাইন মামৃন->>>
ফেনীর সোনাগাজীতে জমির বিরোধ নিয়ে ৫মাসের অন্ত:সত্ত্বা এক নারী ও তার স্বামীকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করেছে প্রতিপক্ষ ও তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা।
বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে সোনাগাজী পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের তুলাতুলি গ্রামের নুরু মিয়া কামলা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হচ্ছেন, ওই বাড়ির আবদু মোতালেবের ছেলে নুরের জামান ও তার স্ত্রী জাহেদা আক্তার।
পুলিশ, এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়, আবদুল মোতালেবের ছেলে নুরের জামান গং পৌরসভার তুলাতুলি মৌজার ৪২৭নং খতিয়ানের ৪৪৬ ও ৪৪৭ দাগে ৪৩ শতক জমিতে ভোগ দখলে থেকে বসবাস করে আসছেন।
তাদের বাড়িতে একসময়ে আশ্রয় নেয়া মোশারফ হোসেন সংশ্লিষ্ট জমির কিছু অংশ জবর দখল করে ঘর নির্মাণ করতে চাইলে ইতোপূর্বে নুরের জামান গং আদালতে একটি দেওয়ানী মামলা দায়ের করেন। মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। গত কয়েক দিন পূর্বে মোশারফ পূণরায় ঘরনির্মাণ করে জমিটি জবর দখলে নিতে চাইলে নুরের জামান গং স্থানীয় সমাজপতিদের কাছে বিচার দাবী করেন। সমাজপতিরাও মোশারফকে জবর দখল করে ঘর নির্মাণ করতে বাধা প্রদান করে এবং তাকে কড়াভাবে নিষেধ করেন। পরবর্তীতে মোশারফ ভাড়াটে সন্ত্রাসী এনে উক্ত জমিতে জোরপূর্বক ঘর নির্মাণ করার প্রস্তুতি নিলে নুরের জামানের চাচা জাহেদুল হক বিপ্লব মোশারফ হোসেন গংদের বিবাদী করে সংঘর্ষের আশঙ্কা প্রকাশ করে ২৬জুন বুধবার সকালে সোনাগাজী মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মোশারফকে কোন প্রকার ঘর নির্মাণ করতে নিষেধ করেন। কিন্তু মোশারফ গায়ের জোরে পুলিশি বাধাকে উপেক্ষা করে বুধবার সন্ধ্যার দিকে একদল ভাড়াটে সন্ত্রাসী এনে পূণরায় জমিটি জবর দখল করে ঘরনির্মাণ কাজ শুরু করে। খবর পেয়ে কাভার্ডভ্যান চালক নুরের জামান চট্রগ্রাম থেকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাড়িতে পৌঁছে বাধা দিলে মোশারফ হোসেন তার ছেলে মনোয়ার হোসেন ও তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে নুরের জামানকে গুরুতর আহত করে, তার পকেটে থাকা নগদ ৫০হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন লুটে নেয়। এসময় তার আর্তচিৎকারে তার ৫মাসের অন্ত:সত্ত্বা স্ত্রী জাহেদা আক্তার এগিয়ে এলে তাকেও পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে এবং তার গলায় থাকা আট আনা ওজনের একটি স্বর্নের চেইন লুটে নেয়।
স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ব্যপারে নুরের জামানের বৃদ্ধ মা হোসনে আরা বেগম বাদী হয়ে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মঈন উদ্দিন আহম্মেদ জানান, তিনি ঞটনাটি শুনেছেন লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।