সোনাগাজীর পালগিরিতে দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ

আপডেট : December, 27, 2019, 11:14 pm

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>সোনাগাজীর মতিগঞ্জ ইউনিয়নের গ্রাম্য চাঁদাবজাদের দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে চট্রগ্রামের এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর বসত ঘরের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যপারে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী নূর আলম ২৭ডিসেম্বর শুক্রবার সকালে তিনজনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। সোনাগাজী মডেল থানার এস.ডি.আর নং-১৬৩২/১৯, তাং-২৭-১২-২০১৯খ্রি.।  এলাকাবাসী, পুলিশ ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়, পালগিরি গ্রামের মগ পুকুর বাড়ির মৃত নাদু মিয়ার ছেলে নূর আলম চট্রগ্রামের একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। সারাজীবনের সঞ্চিত অর্থ ও পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া কিছু জমি বিক্রি করে একটি পাকা বসত ঘর নির্মিণ কাজ শুরু করেন। ছাদ ঢালাইয়ের পূর্ব মুহূর্তে ওই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা নূর আলমের নিকট ইনিয়ে বিনিয়ে ৫০হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। সে দাবিকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে একই গ্রামের ফকিরা পুতের বাড়ির মাহবুল হকের ছেলে শেখ ফরিদ, মো. রুবেল ও জামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে তার নির্মাণাধীন বসত ঘরের জমিতে মালিকানা দাবি করে। গত ১৩ ডিসেম্বর তারা সদলবলে ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মাণ সামগ্রীর ব্যাপক ভাংচুর করে তার প্রায় ৪০/৪৫ হাজার টাকার আর্থিক ক্ষতি করে। পরে তিনি গ্রামবাসীর সহায়তায় ছাদ ঢালাইয়ের কাজ সম্পাদন করেন। এর মধ্যে রাতের আঁধারে তার পানি উত্তোলনের মোটর ও কিছু রড সহ নির্মাণ সামগ্রী চুরি করে নিয়ে যায়। মালামাল চুরি ও সন্ত্রাসীদের অব্যাহত হয়রানিতে দিশেহারা হয়ে পড়ে নূর আলম। ২৫ ডিসেম্বর শেখ ফরিদ, মো. রুবেল ও জামালের নেতৃত্বর একদল সন্ত্রাসী গিয়ে তার নির্মাণাধীন বসত ঘরের কার্নিশের নীচে ইটের খুঁটি দিয়ে জমির মালিকানা দাবি করে ফের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেয়। কৌশলী চাঁদাবাজচক্রটি দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে একের পর এক নানাভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে নূর আলমকে। সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজদের অব্যাহত অত্যাচার আর হয়রানিতে উপায়ন্ত না দেখে নূর আলম সোনাগাজী মডেল থানায় আইনী সহায়তা পেতে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। সোনাগাজী মডেল থানার এসআই ছাইয়েদুর রহমান অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।