দৈনিক অধিকারের বছর সেরা জেলা প্রতিনিধি ফেনীর ইউসুফ

আপডেট : January, 1, 2020, 8:32 am

 

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি-

দৈনিক অধিকারের মফস্বল প্রতিনিধিদের মধ্যে থেকে ২০১৯ সালের বছর সেরা জেলা প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন ফেনীর এস এম ইউসুফ আলী। মফস্বল প্রতিনিধিদের শুরুর থেকে শেষ পর্যন্ত সকল বিষয় বিবেচনা করে বছর সেরা প্রতিনিধির স্থান দখল করে নিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর)দৈনিক অধিকারের মফস্বল বিভাগের প্রধান রাহুল বিশ্বাস তাকে বছর সেরা প্রতিনিধি ঘোষণা করেন। বছর সেরা প্রতিনিধি হওয়ায় এস এম ইউসুফ আলী পুরস্কার হিসেবে পাচ্ছেন- মাসিক সম্মানীর সঙ্গে বোনাস এবং পারফরম্যান্স সনদ।

বছর সেরা প্রতিনিধি নির্বাচিত হওয়ায় এস এম ইউসুফ আলী দৈনিক অধিকার কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমার ১৯ বছরের সাংবাদিকতায় আমি স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ের বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি, তবে পেশাগত দায়িত্ব পালনে দৈনিক অধিকার আমাকে যেভাবে সহযোগিতা করেছে তা আমি কোথাও পাইনি। আমাকে বছর সেরা প্রতিনিধি নির্বাচিত করায় আমি সম্পাদকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এস এম ইউসুফ আলীর বাড়ি ফেনী জেলার দাগনভূঞা উপজেলার পূর্ব চন্দ্রপুর মডেল ইউনিয়নের গাজারিয়ায়। অধিকারের পথ চলা শুরুর কিছুদিন পর থেকেই দৈনিক অধিকারের ফেনী জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন তিনি। সাংবাদিকতার পাশাপাশি স্থানীয় একটি দাখিল মাদ্রাসায় শিক্ষকতাও করেছেন কিছুদিন। পরবর্তীতে নিজ বাড়ির সামনে ফুলকলি মডেল কিন্ডারগার্টেন নামে একটি শিশু শিক্ষালয় প্রতিষ্ঠা করে ওই প্রতিষ্ঠানটিকে জুনিয়র হাইস্কুলে উন্নীত করে পরিচালনাও করছেন তিনি।ফেনী অনলাইন প্রেস ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক, জড়িত আছেন স্থানীয় বিভিন্ন সংগঠনের সাথেও।ছিলেন প্রেসক্লাব ও রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্য সঙ্গেও।

ছোটবেলা থেকেই লেখালেখির প্রতি তার অন্যরকম একটা টান ছিল। ২০০১ সাল থেকেই ম্যাসলাইন মিডিয়া সেন্টার (এমএমসির) প্রশিক্ষণ নিয়ে সংস্থাটির লোকসংবাদ ও ফেনী থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক হকার্স পত্রিকার মাধ্যমে ধীরে ধীরে সাংবাদিকতায় পদচারণ। দীর্ঘ ১৯ বছর তিনি এই পেশায় কর্মরত। সফলতার সাথে নির্বাহী সম্পাদক পদে কাজ করেছেন সাপ্তাহিক ফেনী খবর,শমসের নগর,দৈনিক নয়া পয়গাম পত্রিকায় ।জেলা প্রতিনিধি ছিলেন জাতীয় আজকালের খবর, মোহনা টিভি ছাড়াও দেশের শীর্ষ স্থানীয় গণমাধ্যমে । পরবর্তীতে বেশ কিছুদিন ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন সাপ্তাহিক নির্ভীক পত্রিকায়।বর্তমানে দৈনিক অধিকার পাশাপাশি ডেইলি নিউজ টুড়ের ফেনী জেলা প্রতিনিধি ও সম্পাদনা করছেন ফেনী রিপোর্ট নামে স্থানীয় একটি অনলাইন পত্রিকাও। এ দীর্ঘ সাংবাদিকতা জীবনে নানা হয়রানি ও হামলা-মামলার মুখোমুখিও হয়েছেন তিনি।

গত বছর তথ্য প্রযুক্তি আইনে দুটি মিথ্যে মামলায় অভিযুক্ত হওয়ার পর আইসিটি দপ্তরে হাজির হয়ে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করেন তিনি। এরপরও ফেনীর আলোচিত মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত ইস্যুতে দৈনিক অধিকারে জেলা পুলিশ প্রশাসনের অবহেলার সংবাদ প্রকাশ করে রোষানলে পড়েন তৎকালীন এসপি জাহাঙ্গীর আলম সরকার, ফেনী মডেল থানার ওসি আবুল কালাম আজাদসহ বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তার। ওইসব অসাধু পুলিশ কর্মকর্তারা জেদের বশবর্তী হয়ে ফেনী ছাড়ার আগে অন্তত এক ডজন মামলায় ফাঁসিয়ে যান তিনিসহ জেলার আরও ৩ সাংবাদিককে। ওই সব মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে এখনো ফেনীতে হাজিরা দিতে হচ্ছে দৈনিক অধিকারের এ প্রতিনিধিকে।

প্রসঙ্গত, দৈনিক অধিকারে বছর সেরা প্রতিনিধি বাছাইয়ের ক্ষেত্রে যে সকল বিষয়গুলো বিবেচনা করা হয় তা হলো- ১. ডেইলি ইভেন্ট সংগ্রহের পরিমাণ, ২. তাৎক্ষণিক সংবাদ পাঠানোর দক্ষতা, ৩. নিজ সংবাদের পাঠকপ্রিয়তা বাড়ানোর জন্য আপনার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ, ৪. লেখার মান, ৫. সাংগঠনিক দক্ষতা, ৬. স্পেশাল রিপোর্টের পরিমাণ, ৭. হাউজের প্রতি আন্তরিকতা, ৮. আচার ব্যবহার, ৯. সাংবাদিকতার প্রতি একাগ্রতা ও ১০. অফিসের সকল নির্দেশনা মেনে চলা, ১১. অনুসন্ধানী সংবাদ সংগ্রহ।