ফেনী বিএমএসএফ সভাপতির জসিম মাহমুদের বিরুদ্ধে হয়রানী মূলক মামলা, প্রতিবাদের ঝড়

আপডেট : February, 26, 2020, 10:42 pm

আলোকিত সময় ডেস্ক>>>

 

 

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বিএমএসএফ ফেনী জেলা সভাপতি জসীম মাহমুদ ও সাংবাদিক নাছির উদ্দিনের বিরুদ্ধে হয়রানি মূলক মামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ফেনী আলোকদিয়ার গালকাটা নাছির বাদী হয়ে আদালতে এই মামলা করে।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়, গত ৫ ফ্রেব্রুয়ারী ফেইসবুক ও অনলাইন মিডিয়ায় ভাইরাল হয় সম্পত্তির লোভে আপন সহোদরকে পাগল সাজিয়ে ১৬ বছর বন্দি।উক্ত সংবাদের সত্যতা যাচাই করতে সাপ্তাহিক নির্ভীক পত্রিকার বার্তা সম্পাদক নাছির উদ্দিন ঘটনাস্হল আলোকদিয়ায় যায়। সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে নাছির উদ্দিন প্রকাশ গালকাটা নাছির তার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তার ক্যামরা মোবাইল, টাকা,চশমা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছিনিয়ে নেয় এবং তাকে মারধোর করে। ঐদিনই সাংবাদিক নাছির বাদী হয়ে গালকাটা নাছিরের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করে।মামলাটি রেকর্ড হয় ৯ তারিখে। গালকাটা নাছির গ্রেফতার হয় চলতি মাসের ১০ তারিখে।এর আগে ৬ ফ্রেব্রুয়ারী গালকাটা নাছির তার স্ত্রীকে বাদী করে ফেনীর আাালতে সাংবাদিক জসীম মাহমুদ ও মোঃ নাছির উদ্দিনকে বিবাদী করে একটি মামলা দায়ের করে। মামলাটি পুলিশ ইনভেষ্টিগেশন ব্যুরো কে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়।
প্রত্যক্ষদর্শি ও এলাকার লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, ঘটনার সময় একনম্বর আসামী জসীম মাহমুদ ঘটনার স্হলে ছিলেন না। সে সময় তিনি ছিলেন ফেনীর একটি হাসপাতালে।
সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় ফেনীর প্রায় সবগুলো পত্রিকায় খবর ছাপা হয়।
বাদীর মানিত স্বাক্ষীদের সাথে মামলার বিষয়ে কথা বললে ( জানু মিয়া, নুরুল আলম, খোরশেদ আলম) তারা জানায়, ঘটনার সময় এক নম্বর আসামী কে তারা দেখেনি। সাংবাদিককে( সাংবাদিক নাছির) মারধোর করার সময় তারা সেখানে উপস্হিত হন।
বিভিন্ন মহলের প্রতিবাদঃ বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বিএমএসএফ’র কেন্দ্রীয় সভাপতি শহিদুল ইসলাম পাইলট ও সাধারন সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, হয়রানি মূলক মামলা দিয়ে সাংবাদিকের কন্ঠ রোধ করা যাবেনা। অবিলম্বে সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের আহবান জানান তারা।
বাংলাদেশ মানবাধিকার সম্মিলন বামাস চেয়ারম্যান এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম নান্টু এক বিবৃতিতে বলেন, বিএমএসএফ ফেনীর সভাপতি জসীম মাহমুদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ হয়রানি মূলক, ভূয়া ও ভিত্তিহীন। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।
ন্যাশনাল প্রেস ইনস্টিটিউটের সিনিয়র সহসভাপতি তসলিম চৌধুরী, ফেনী সদর, সোনাগাজী,ফুলগাজী, পরশুরাম, দাগনভূঁইয়া ও ছাগলনাইয়া বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ বিবৃতি দিয়ে বলেন, মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে সাংবাদিকের কন্ঠ রোধ সম্ভব নয়। অবিলম্বে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান তারা। অন্যথায় বিএমএসএফ’র সারাদেশের ৩৮৯ টি কমিটির প্রায় সতর হাজার সাংবাদিক গর্জে উঠবে।
আরো একাধিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মিথ্যা ও ভূয়া মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান।