সোনাগাজীর ছাড়াইতকান্দিতে সৌদি প্রবাসীকে হয়রানির অভিযোগ

আপডেট : March, 10, 2020, 9:31 pm

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>
সোনাগাজী উপজেলার ছাড়াইতকান্দি গ্রামের আলী নেওয়াজের ওয়ারিশ সৌদি প্রবাসী মো. কামাল উদ্দিনকে একটি কুচক্রি মহল নানা অজুহাতে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত কামাল উদ্দিন অভিযোগ করেন, তার পূর্বপুরুষ আলী নেওয়াজ সোনাগাজী সদর ইউনিয়নে ছাড়াইতকান্দি হোসাইনিয়া মাদ্রাসার জন্য জমি দান করে মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা করেন। তার পূর্বপুরুষদের দানকৃত জমিতে প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসার উন্নয়নে প্রতিনিয়ত তারা সহযোগিতার হাত প্রসারিত করে আসছেন। দেশের অর্থনীতির চাকা ঘোরাতে ও নিজের ভাগ্য উন্নয়নে জীবিকার তাগিদে সৌদি আরবের মক্কা শরীফে পাড়ি জমান কামাল। সেখানে থাকা অবস্থায় বাংলাদেশ থেকে আগত হাজী সহ বাংলাদেশীদের সেবায় নিজেকে সব সময় নিয়োজিত রাখেন। বিদেশে থাকা অবস্থায় মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ কামাল উদ্দিনের খরিদ ও ওয়ারিশ সূত্রে মালিকীয় প্রায় আড়াই শতক জমি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ করে। কামাল উদ্দিনের পিতা এ ব্যাপারে বাদি হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে দফায় দাফায় সালিশি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

পরবর্তীতে সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মঈন উদ্দিনের নির্দেশনা মোতাবেক দুই পক্ষের দুই জন মনোনীত সার্ভেয়ার আমিন দিয়ে তর্কিত জমিটি গত ২৯ জানুয়ারি চূড়ান্তভাবে পরিমাপ করা হয়। কামাল উদ্দিনের পক্ষে সার্ভেয়ার আমিন ছিলেন মো. মোস্তফা জসিম আমিন এবং মাদ্রাসার পক্ষে সার্ভেয়ার আমিন ছিলেন মো. নূর হোসেন আমিন। দুই জন আমিন দীর্ঘ সময় পর্যন্ত জমি পরিমাপ করে কাগজপত্র পর্যালোচনা শেষে উভয় পক্ষকে জমি পরিমাপের নকশা প্রদান করেন। মাদ্রাসার দখলকৃত জমিটি কামাল উদ্দিন নিজেদের দখলে নিতে হলে ভবন ভেঙে নিতে হবে। তাই প্রায় আড়াই শতক জমি ছেড়ে দেন। একই খতিয়ান ও দাগের আগের নির্মিত টিনের তৈরি দোকান ঘর ভেঙে আধাপাকা দোকান ঘর তৈরি করতে গেলে নেপথ্যে থেকে কলকাড়ি নাড়ে একটি কুচক্রি মহল। সৌদি প্রবাসী কামাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কুটসা রটিয়ে চালাতে থাকে নানা অপপ্রচার। তাকে মানসিকভাবে হয়রানি করে আসছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র।

কামাল উদ্দিন আরো আভিযোগ করেন, কষ্টার্জিত অর্থ দেশের মানুষদের কল্যাণে ব্যয় করে যাচ্ছেন। তাদের প্রাণপ্রিয় মাদ্রাসাটি তার পূর্বপুরুষদের দেয়া জমিতে তৈরি করা হয়েছে। তাদের জমিও দখল করেছে আপত্তি নেই। কিন্তু নিজের জমিতে তৈরিকৃত দোকানঘর সংস্কার করতে গেলে কুচক্রি মহলের কুদৃষ্টি পড়ে। এসব হয়রানি থেকে বাঁচতে তিনি সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেছেন।