ফেনীর পরশুরামে সরকারি ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে চলছে হরিলুট

আপডেট : April, 6, 2020, 11:09 pm

বিশেষ প্রতিনিধি –

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা উপেক্ষা করে পরশুরামে সরকারি ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে হরিলুট চলছে বলে দাবি করেছেন পরশুরাম পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আহামেদ চৌধুরী সাজেল। পরশুরামে সরকারি ভাবে তিন কিস্তি নগদ অর্থ ও ত্রাণ সামগ্রী বরাদ্দ পেয়েছে। কিন্তু উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসন দৃষ্যমান সুষ্ঠভাবে বন্টন করেন নি বলে মেযর অভিযোগ করেন।

পরশুরামে সরকারি ভাবে বরাদ্দকৃত ১ম কিস্তির ত্রাণ সামগ্রী অনিয়মের মাধ্যমে বিতরণ হলে ও ২য় কিস্তি ত্রাণ ও নগদ টাকার কোন হদিস নেই বলে মেয়র সোমবার সন্ধায় তার ফেসবুকে স্টাটার্স দেন ।
পরশুরাম পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আহামেদ চৌধুরী সাজেল এর ফেসবুক স্টাটার্স হুবুহু তুলে দেয়া হলো ।

“সম্মানিত পরশুরাম উপজেলাবাসী দেশের এই ক্রান্তিকালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম করলে বিন্দু মাত্র ছাড় দিবেন না। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা উপেক্ষা করে ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে হরিলুট চলছে এখানে। ১ম কিস্তি ত্রাণ সামগ্রী অনিয়মের মাধ্যমে বিতরণ হলে ও ২য় কিস্তি ত্রাণ ও নগদ টাকার কোন হদিস নেই। পরশুরাম উপজেলা বাসীর পক্ষে ত্রাণ সামগ্রীর সুসম বন্টন দাবী করছি।

পরশুরামে এ পর্যন্ত সরকারি ভাবে প্রাপ্ত তিন কিস্তিতে বরাদ্দকৃত নগদ টাকা ও ত্রাণের পরিমান।
১ম কিস্তি থেকে ১০ টন চাউলও নগদ ১ লাখ টাকা।
২য় কিস্তি প্রাপ্ত ৩০ মেট্রিক টন চাউল এবং নগদ ৭৫ হাজার টাকা প্রাপ্ত।
৩য় কিস্তি হতে প্রাপ্ত চাল ৫ টন ও নগদ ৫০ হাজার টাকা।
পরশুরাম পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আহামেদ চৌধুরী সাজেল জানান, দেশের দু:সময়ে হতদরিদ্র মানুষের জন্য বরাদ্দকৃত ত্রাণ সামগ্রীর সুষম বণ্টন করতে প্রধানমন্ত্রী কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা উপেক্ষা করে পরশুরামে সরকারি ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে হরিলুট চলছে।

তিনি আরো জানান, তার পরিবারের ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে বিপুল পরিমান ত্রান সামগ্রী, হ্যান্ড ওয়াস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার মাস্ক বাড়ীতে বাড়ীতে পৌছে দিয়েছেন। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে দফায় দফায় মাইকিং সহ বিভিন্ন প্রচারণা এবং পরশুরামে জীবাণুমুক্ত করনের জন্য জীবানচনাশক ছিটানো কার্যক্রম অব্যাহত রাখেন।