পাকিস্তানে চিকিৎসকদের বিক্ষোভ, আটক অর্ধশতাধিক

আপডেট : April, 8, 2020, 6:04 am

আলোকিত সময় ডেস্ক-

পাকিস্তানের বিক্ষোভের সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ার পর অর্ধশতাধিক চিকিৎসককে আটক করা হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে পর্যাপ্ত ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) না পাওয়ায় বিক্ষোভ করছিলেন ওই চিকিৎসকরা।

কোয়েটা পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা আব্দুল রাজ্জাক চিমার বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, বেলুচিস্তানের কোয়েটায় প্রধান হাসপাতালের সামনে শতাধিক চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী পর্যাপ্ত পিপিই না পাওয়ায় বিক্ষোভ করছিলেন। এক পর্যায়ে বিক্ষোভ মিছিলটি প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনের দিকে যায়। মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে ঢোকার চেষ্টা করলে বিক্ষোভকারীদের লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ। এসময় ৫৩ জনকে আটক করা হয়।
তবে প্রাদেশিক সরকারের নির্দেশে কয়েক ঘণ্টা পরই চিকিৎসকদের ছেড়ে দেয়া হয়।

তবে আটক হওয়া চিকিৎসকদের কয়েকজন এএফপিকে জানিয়েছেন, তাদের অনেকেই আটকের পরেও মারধর করা হয়েছে।
এদিকে ঘটনার পর মঙ্গলবার কোয়েটার চিকিৎসকদের দ্রুত পিপিই সরবরাহের আশ্বাস জানিয়েছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী।

বেলুচিস্তান সরকারের মুখপাত্র লিয়াকত শেহওয়ানি বলেন, মাস্ক ও সুরক্ষা চশমাসহ পিপিইর সংকটের জন্য চিকিৎসকরা বিক্ষোভ করেছেন। শিগগিরই তাদেরকে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহ করা হবে। ফেডারেল সরকারের কাছ থেকে সুরক্ষা সামগ্রী পাওয়ার পর অতি দ্রুত সেগুলো চিকিৎসকদের মাঝে বিতরণ করা হবে।
এদিকে প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পাকিস্তানের করোনা শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা ৪ হাজার ছাড়িয়েছে। গত চব্বিশ ঘণ্টায় মারা যুক্ত হয়েছেন ২৪৩ রোগী। এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে ৫৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৩ জন।