বারাহিগুনী প্রবাসী মিলন গোপনে‌ ত্রাণ সহায়তা

আপডেট : April, 18, 2020, 12:27 pm

  • আলোকিত সময় ডেস্ক>>>

 

 

এবার খেটে খাওয়া দিন-মজুর অসহায় মানুষদের পাশে এসে দাঁড়ালেন ডুবাইয়ের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বারাহিগুনী প্রবাসী মিলন। তিনি এখন স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে ফেনী শহরে থাকলেও প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের এই দূর্যোগের সময়ে ভুলেননি নিজ গ্রামের দিনমজুরদের। করোনাভাইরাস আতঙ্কে সরকারী নির্দেশে বাংলাদেশে বর্তমানে সাধারণ ছুটি চলছে। ফলে স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় সহ সব অফিস-আদালত ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। হাতে গোনা কয়েকটি পেশার মানুষ নিজেদের দায়িত্ব পালনের জন্য ঘর থেকে বের হলেও সরাকারী নির্দেশে বাকিদের ঘরেই অবস্থান করতে হচ্ছে। তবে সবকিছু বন্ধ হয়ে যাওয়ায় খেটে খাওয়া মানুষরা রয়েছেন চরম খাদ্য সংকটে। তাদের এই কঠিন মূহূর্তে দেশের সরকার সাহায্যের জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করলেও শতভাগ মিটছে না মানুষের চাহিদা। এমন সময়ে ডুবাই থেকে বারাহিগুনী অসহায় গরীব পরিবারের খাদ্য সংকট কাটানোর চেষ্টা করছেন। তিনি গোপনে বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে এ সহায়তা দিয়ে আসছেন।

এ প্রসঙ্গে মিলন বলেন, আমি এগিয়ে এসেছি, আপনিও এগিয়ে আসুন, আমরা সবাই এগিয়ে আসলে, হাসবে গোটা বাংলাদেশ। দূর হবে দুর্যোগ। যার যার অবস্থানে থেকে সবাই এক সঙ্গে এগিয়ে আসলে বাংলাদেশের একটি মানুষও না খেয়ে থাকবে না। ইনশাল্লাহ সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই দূর্যোগ কাটিয়ে উঠবো আমরা।’

মিলনের গ্রামের বাড়ি ফেনীর দাগনভূঁইয়া উপজেলার, জায়লস্কর ইউনিয়নের, উত্তর বারাহি গোবিন্দ,মোহাম্মদ আলী‌ মিজি বাড়ি।

প্রবাসী মিলনের এমন কর্মকাণ্ডকে প্রশংসনীয় ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন নাবারুন ৭১ মানব কল্যাণ সংগঠনের সভাপতি মাহবুবুল চিশতী বাবলু, সম্পাদক রাসেদুল আলম রাসেল,সহ-সভাপতি ও সাংবাদিক ‌জসিম উদ্দিন ফরায়েজী। তারা বলেন প্রবাসীরা বাংলাদেশের যে কোন দুর্যোগে এগিয়ে আসেন। এক্ষেত্রে তাদের অবদান উল্লেখ করার মতো। মহামারী করোনায় বিপর্যস্ত এই  সময়ে সরকারের পাশাপাশি প্রবাসীরা নিজ গ্রামের জন্য গোপনে ত্রান দেয়া তা প্রশংসনীয়। তারা এ ক্ষেত্রে সমাজের বিত্তশালীদেরকে নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী অসহায় মানুষের পাশে এগিয়ে আসার আহবান জানান।