সোনাগাজীর চরচান্দিয়ায় ঘর নির্মাণে বাধা-থানায় অভিযোগ

আপডেট : May, 13, 2020, 3:58 am

বিশেষ প্রতিনিধি-

সোনাগাজী উপজেলার দক্ষিণ চরছান্দিয়ায় প্রবাসী আবুল হাসেমের পরিবারকে দালানঘর নির্মাণ কাজে বাধা দিচ্ছে প্রতিপক্ষরা এমন অভিযোগে প্রবাসীর স্ত্রী ছকিনা বেগম বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় একটি অভিযোগ (SDR-457) দায়ের করেন।

বাদীনির মৌখিক অভিযোগ ও এজহার সূত্রে জানা যায়, সোনাগাজী উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডে প্রবাসী আবুল হাসেমের নতুন বাড়ীতে তার নিজস্ব মালিকীয় দক্ষিণ চরছান্দিয়া মোজার দিয়ারা ৯৫১ বিএস ১২৪১ নং ডিপি খতিয়ানের দিয়ারা ২৮১৫ বাটা ৮ দাগ ৪০ শতক আন্দরে ও দলিল নং ৫২৬৮ তে তার পাকা দালান ঘর নির্মাণ কাজ করার কাজে, প্রতিপক্ষ জেবল হকের ছেলে ছায়েদুল হক পিয়াস, আরমান, অনিক, রুবেল সহ স্থানীয় বহিরাগত লোকজন নিয়া বারবার ঘর নির্মাণ কাজে বাধার প্রদান করে এবং নির্মাণ সামগ্রী ভাঙচুর করিয়া ও ছুড়িয়া ফেলিয়া ক্ষতি সাধন করে। প্রতিপক্ষরা বাদীনির জায়গায় জোর করিয়া সীমানা প্রাচীর নির্মাণ আরম্ব করে। বাদীনি ছকিনা বেগম ও তার মেয়ে বাধা দিলে করিলে তাদেরকে মারধর ও খুন করিবে বলে হুমকি দেয়। আমাদের দালানঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকায় নির্মাণ সামগ্রী নষ্ট হচ্ছে এবং আমরা আর্থিকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি।

বাদীনি ছকিনা খাতুন আরো জানায়, বিবাদীগন জোর জুলুমবাজ ও জবরদখলকারী তাহারা আমাদের জায়গা দীর্ঘদিন জবরদখল করিয়া রাখে। আমার স্বামী প্রবাসী ও ছেলেমেয়েরা স্কুল কলেজে থাকার সুবাদে আমাদের বাড়ীতে কোন পুরুষ সদস্য না থাকায়, বিবাদীগন সব সময় গায়ে পড়ে আমাদের সাথে ঝগড়া বিবাদে লিপ্ত হয়। ১২ই মে মঙ্গলবার তাহারা জোর করে আমাদের একটি গাছ কেটে নিয়ে যায়, আমরা বাধা দিলে আমাদের দিকে ইট নিক্ষেপ করে। এতে আমাদের পরিবারের সদস্য জান্নাতুল ফেরদৌস (২৬) শারমিন আক্তার (২১) হোসনে আরা (৪৫) শেফালী আক্তার (৫০) শাওন (৩) কে আহত করে। আমরা ইতিমধ্যে সোনাগাজী থানায় অভিযোগ দিয়েছি। আমরা সোনাগাজী থানা প্রশাসনের নিকট সুবিচার দাবি করছি।

এই বিষয়ে বিবাদী জেবল হকের ছেলে ছায়েদুল হক পিয়াস জানান, আমাদের কবলা এবং খতিয়ান নেই এটা সত্য, তবে তাদের সাথে ১৯৯২ সালে সম্পাদিত বায়নাপত্র মূলে আমরা এই জায়গায় দখলে আছি।