প্রতিপক্ষের হামলা-মামলা থেকে রেহাই পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে সোনাগাজীতে এক ব্যক্তির সংবাদ সম্মেলন

আপডেট : December, 12, 2020, 11:33 pm

স্টাফ রিপোর্টারঃ
ফেনীর সোনাগাজীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষ ও ভাড়াটে সন্ত্রাসীদের হামলা-মামলা থেকে রেহাই পেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করে নূর করিম ভূট্রো নামে এক ব্যক্তি সংবাদ সম্মেলন করেছেন। তিনি সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের চৌকিদার বাড়ির বাসিন্দা শনিবার বিকেলে প্রতিবন্ধী সংস্থার অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন, দীর্ঘ ১৭ বছর যাবৎ ৩৭ শতক জমি নিয়ে তার সাথে প্রতিবেশি হাবিবুর রহমানের বাড়ির হেদায়েত উল্যাহ গংদের সাথে বিরোধ চলছে। এই বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষ হেদায়েত উল্যাহ ও মো. শাহ আলম গং তার বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে একাধিকবার হামলা-মামলা দিয়ে হয়রানি করে যাচ্ছে। গত ৬ ডিসেম্বর হেদায়েত উল্যাহর স্ত্রী নার্গিস আক্তার ভাড়াটে সন্ত্রাসী এনে তর্কিত জমিতে গাছ কাটা শুরু করে। এ বিষয়ে নূর করিম ভূট্রো সোনাগাজী সার্কেল অফিসে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এতে প্রতিপক্ষ ও তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে একই দিন রাত ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদের সামনে সোনাগাজী-ফেনী সড়কের উপর ভূট্রোর উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে হত্যার চেষ্টা চালায়। কিন্তু উল্টো হেদায়েত উল্যাহার স্ত্রী নার্গিস আক্তার বাদী হয়ে নূর করিম ভূট্রো, তার ছেলে নজরুল ইসলাম, মেয়ের জামাই ইমন, তার স্ত্রী বালি বিয়া ও কন্যা পপি আক্তার সহ ৫জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা ৫/৬জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পরদিন ৭ ডিসেম্বর নূর করিমম ভূট্রো বাদী হয়ে হেদায়েত উল্যাহর ছেলে নাঈম, ভগ্নিপতি মো. শাহ আলম, পালগিরি গ্রামের মিজানুর রহমান, সোনাপুর গ্রামের মো. রুবেল ও তুলাতলি গ্রামের নিশাদের নাম উল্লেখ করে ফেনীর সিনিয়র ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সোনাগাজী-দাগনভূঞা সার্কেলকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। নার্গিস আক্তারের দায়েরকৃত মামলায় গত ৮ডিসেম্বর ভূট্রো ও তার পরিবারের সদস্যরা ফেনীর আদালত থেকে জামিন নিলেও বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন বলে দাবী করেছেন। তিনি প্রতিপক্ষের হামলা-মামলা থেকে রেহাই পেতে প্রধানমন্ত্রী সহ আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে তার নিকটাত্মীয় মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।