সোনাগাজী পৌরসভার মেয়র খোকন বললেন দায়ীত্ব পালনে তিনি শতভাগ সফল হয়েছেন

আপডেট : March, 13, 2021, 2:28 pm

 

জাবেদ-মামুন- >>>
পাঁচ বছরে কতটুকু সফল হয়েছেন জানতে চাইলে সোনাগাজী পৌরসভার মেয়র, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন বললেন, দায়ীত্ব পালনে আমি শতভাগ সফল হয়েছি।
ঋণের বোঝা মাথায় চেপে পৌরসভাকে এগিয়ে নিয়েছি।
তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ফেনী-২ আসনের সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারীর নির্দেশনা ও সহযোগিতায় সোনাগাজী পৌরসভাকে প্রথম শ্রেনিতে উন্নীত করেছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন করেছি।

সোনাগাজী পৌরসভার ঘনবসতিপূর্ণ বাড়ির নাগরিকদের চলাচলের সুবিধার জন্য গুরুত্বসহকারে রাস্তা করে দেয়া হয়েছে।
পৌরসভার প্রধান প্রধান সড়কগুলো পাথর ঢালাই করে দেয়া হয়েছে।
সোনাগাজী পৌরসভায় আধুনিকতার নির্দশন হিসেবে দৃষ্টি নন্দন গেইট নির্মাণ করে দিয়েছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় বহুতল ভবন তথা অডিটরিয়াম নির্মাণ করে দিয়েছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় শতভাগ বিধবা-বয়স্ক ভাতা চালু করেছি।

সোনাগাজী পৌরসভায় শতভাগ প্রতিববন্ধী ভাতা চালু করেছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় টেবিলে টেবিলে ঘুষ দুর্নীতি বন্ধ করে দিয়েছি।

সোনাগাজী পৌরসভায় বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ লাইন নির্মাণ কাজ শুরু করেছি।

সোনাগাজী পৌরসভায় শান্তি, সম্প্রীতি ও সহবাস্থানের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করেছি।
নতুন ভবন নির্মাণের প্ল্যান পাসে টেবিলে টেবিলে ঘুষ বন্ধ করে দিয়েছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় কর্মকর্তা কর্মচারীদের প্রতিটি কর্ম দিবসে উপস্থিতি নিশ্চিত করেছি।
নাগরিক সেবা নিশ্চিতে কুইক রেসফন্স পদ্ধতি চালু করেছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় জন্ম নিবন্ধন, মৃত্যু ও ওয়ারিশ সনদ প্রদানে হয়রানি বন্ধ করেছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় গর্ভবতী মায়ের শতভাগ মাতৃত্বকালীণ ভাতার নিশ্চিত করেছি।

চলমান করোনাভাইরাসের মহামারিতে নিজের জীবনবাজি রেখে নাগরিকদের পাশে থেকে সাধ্যমত সহযোগিতা করেছি।
পৌর কাউন্সিলরদের সহ সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর বেতন ভাতা যথা সময়ে প্রদান করেছি।

সোনাগাজী পৌরসভার পরিচ্ছন্ন কর্মীদের সকল সুযোগ সুবিধা দিয়ে পৌর এলাকাকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রেখেছি।

সোনাগাজী পৌরসভায় জলাবদ্ধতা নিরসন ও পয়নিষ্কাশনের জন্য পর্যাপ্ত ড্রেন নির্মাণ করেছি।

মশক নিধনে প্রতিদিন যান্ত্রিক ঔষধ ছিটানো হচ্ছে।
সোনাগাজীতে মিথ্যা মামলার রাজনীতি বন্ধ করেছি।
সোনাগাজী পৌরসভায় সন্ত্রাস আর পেশী শক্তির রাজনীতি বন্ধ করেছি।

নাগরিক সেবা নিশ্চিতে নাগরিকদেরকে দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে আমি মনে করি শতভাগ সফল হয়েছি।
আগামীবার নির্বাচিত হলে আরো যেসকল অসমাপ্ত কাজ রয়েছে শতভাগ সমাপ্ত করে দিতে পারবো বলে মনে করছি।
২০০২ সালে প্রতিষ্ঠিত এই পৌরসভায় আ.লীগের প্রথম মেয়র ছিলেন তিনি।
দল ক্ষমতায় থাকার সুবাধে তিনি ক্ষমতাসীন দলের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে তিনি উন্নয়ন কাজ সহ বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ বাগিয়ে এনেছেন বলে দাবি করেছেন।
দলের তৃণমূলের ভোটে তিনি প্রথমস্থান অধিকার করেছেন। জেলা আ.লীগ কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের কাছে খোকন সহ তিন জনের নাম প্রস্তাব করে পাঠিয়েছেন।