সোনাগাজীতে বৃদ্ধকে পিটিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা

আপডেট : June, 24, 2021, 8:58 pm

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>
ফেনীর সোনাগাজীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে ফকির আহম্মদ (৬৭)কে পিটিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। বুধবার রাত পৌনে নয়টার দিকে উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ পূর্ব চরচান্দিয়া গ্রামের বাবুলের দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মসজিদে এশার নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে সন্ত্রাসীরা পূর্বপরিকল্পিতভাবে এ হামলা চালায়। পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতের পরিবার জানায়, উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ পূর্ব চরচান্দিয়া গ্রামের মিন্নত আলী পন্ডিত বাড়ির ফকির আহম্মদ টাকার প্রয়োজন হওয়ায় একই গ্রামের মোশারফ হোসেন মানিকের নিকট তার মালিকীয় জমি বন্ধক রেখে ৬০হাজার টাকা গ্রহণ করে, চাষাবাদের জন্য তার মালিকীয় জমি দখল বুঝিয়ে দেন। সম্প্রতি তিনি বন্ধকী ৬০হাজার টাকা মানিককে ফেরৎ দিয়ে দেন এবং জমিটি মো. রিয়াদ নামে এক বর্গা চাষীর নিকট বর্গা দেন। কিন্তু মানিক জমিটি বর্গাচাষীকে দখল দিতে গড়িমসি করতে থাকে। এনিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার সালিশি বৈঠক বসলেও মানিক গায়ের জোরে সালিশ বিচারের তোয়াক্কা না করে ফকির আহম্মদ ও তার স্বজনদের গালমন্দ করতে থাকেন। গত ১৯জুন সকালে পূর্বপরিকল্পিতভাবে মানিক ও তার মামা গোফরানের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ফকির আহম্মদের ছেলে স্কুল শিক্ষক আবদুল আজিজকে হত্যার উদ্দেশ্যে কিরিচ দিয়ে কোপ মারে। স্থানীয়দের সহায়তায় অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান মাস্টার আজিজ। এতে ক্ষ্যান্ত হয়নি সন্ত্রাসীরা ২২জুন সকালে মানিক, গোফরান, আবদুল মতিনের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী বর্গাচাষী মো. রিয়াদকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। দুটি হামলার ঘটনায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সোনাগাজী মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মাস্টার আবদুল আজিজ। এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা। মাস্টার আবদুল আজিজের বৃদ্ধ পিতাকে হত্যার পরিকল্পনা করে তারা। পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক ফকির আহম্মদ এশার নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে ২৩জুন বুধবার রাত পৌনে নয়টার দিকে দক্ষিণ পূর্ব চরচান্দিয়া গ্রামের আবদুল করিমের ছেলে আবদুল গোফরান, তার ছেলে আলতাফ হোসেন, তার ভাই আবদুল মতিন, আবদুল মতিনের ছেলে মাহমুদুল হাসান, গোফরানের ভাগ্নে, একই গ্রামের ইব্রাহীমের ছেলে মো. শাকিল এবং মোশারফ হোসেন মানিকের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী অতর্কিত হামলা চালায়। বৃদ্ধ ফকির আহম্মদকে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে সন্ত্রাসীরা। স্থানীয়রা ফকির আহম্মদকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লক্সে ভর্তি করে।
আহতের ছেলে মাস্টার আবদুল আজিজ বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় ৬জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন।