ছাত্রদলের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে নানামুখী ষড়যন্ত্র শিকার ছাত্রনেতা দুলাল

আপডেট : July, 2, 2021, 4:44 pm

আলোকিত সময় ডেস্ক >>>

 

আগামীতে আসন্ন ফেনী জেলা ছাত্রদলের কমিটিতে দুলাল সভাপতি পদ প্রার্থী ছিলেন। এ নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন রাজনৈতিক ভাবে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে নারী ঘটিত একটি মামলায় দুলালকে আসামী করে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে দাবী করেছেন দুলালের পিতা রুহুল আমীন।

সাংবাদিকদের সাথে আজ আলাপকালে রুহুল আমীন জানান, কাজী নজরুল ইসলাম দুলাল ফেনী ল’কলেজের মেধাবী ছাত্র। সে দীর্ঘ দিন যাবত বিএনপির ছাত্র সংগঠন ছাত্র দলের রাজনীতির সাথে জড়িত। বর্তমানে সে তার সাংগঠনিক কর্ম দক্ষতায় জেলা ছাত্রদলের ১ নং সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে।কিন্তু আসন্ন জেলা কমিটিতে দুলাল সভাপতি পদ প্রার্থী ছিলো এটাই তার জন্য কাল হয়ে দাঁড়ায়। হঠাৎ বিবাহিত এক নারীর সাথে দুলালকে জড়িয়ে হইচই তৈরী করা হয়েছে সম্পুর্ন উদ্দেশ্য মুলকভাবে।মুলত ঐ মহিলা একটা মাদকসেবী,নেশাগ্রস্ত মহিলা।ইতিমধ্যে যোগাযোগ মাধ্যমে তার নেশার অনেক ছবি আমাদের কাছে এসে পৌচেছে।
দুলাল পারিবারিক আর্দশে বেড়ে উঠা ছেলে। সে এমনটি করতে পারেনা বলে দাবী তার বাবার।

তিনি আরো বলেন,দুলালের নামে মামলাটি রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য করা হয়েছে যাতে তার দল ও বিরোধি শক্তি জড়িত। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন- দুলালের সাথে যদি এত বছরের সম্পর্ক থাকতো তাহলে বলা নেই কওয়া নেই হঠাৎ কমিটি ঘোষনার এ মুহূর্তে কেন এ মামলা? তিনি আরো বলেন- শুধু দুলাল নয় একই ঘটনা মঞ্চায়ন করে ফেনী পৌর বিএনপির সদস্য সচিব মেজবাহ উদ্দিন ভুঞা ও মহিলা দলের নেত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস মিতাকে ও নানাভাবে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এসব নাটের গুরুদের ফেনীবাসী চিনে। তাই এ সবে বিভ্রান্ত না হতে দলীয় কর্মী সমর্থক ও ফেনীবাসীর নিকট অনুরোধ জানান দুলালের পিতা।