অপ্রচার ও গুজবের প্রতিবাদে মাতুভূঞায় তৃনমূল ভোটারদের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট : November, 2, 2021, 12:28 am

স্টাফ রিপোর্টার :
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ কিছু মিডিয়ায় মাতুভূঞা ইউনিয়নের তৃণমূল ভোটারদের ভয়-ভীতি, জিম্মি ও মারধরের সংবাদ প্রচারের প্রতিবাদে রবিবার সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করেছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মাসুদ। তিনি বলেন, আমরা সকাল থেকেই তৃণমূল ভোটাররা একে অপরের সাথে যোগাযোগ রেখেছি কিন্তু ভোট স্থগিত হওয়ায় আমরা ফিরে আসি অথচ একটি মহল মিথ্যা সংবাদ প্রচার করেছে যা ভিত্তিহীন।এসময় তিনি মিথ্যা সংবাদ প্রচারের তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
এছাড়াও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুর রব রবি বলেন, মাতুভূঞা ইউনিয়ন ঐক্যবদ্ধ ছিলো,আছে এবং থাকবে। কিছু কুচক্রীমহল আমাদের ভিতর প্রবেশ করে বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছে।আমি ব্যক্তিগতভাবে খবর নিয়েছি আসলে হুমকি-ধামকি, মারধর বা অপহরণের কোন ঘটনাই ঘটেনি।
৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিন বলেন, একটি মহল উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে গুজব ছড়াচ্ছে আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন বলেন,যারা মিডিয়ার মাধ্যমে সমালোচনা করছেন তা না করলে আমরা ভালো থাকবো।আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক কেউ অচল করার চেষ্টা করবেন না।
৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রহমত উল্লাহ বলেন, যারা না জেনে বুঝে হেয়পূর্ণ সংবাদ প্রচার করছেন তার নিন্দা জানাচ্ছি।
২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন মেম্বার বলেন, আমরা তৃণমূল ভোট প্রদানের উদ্দেশ্যে একত্রিত হই,কিন্তু মেসেজ আসে ভোট হবে না,বিকেলে কিছু মিডিয়ায় আসে আমাদের জিম্মি করে রাখে হয়েছে। আমাদের অপবাদ দেয়া হয়েছে যার প্রতিবাদ জানাই।
৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ গিয়াস উদ্দিন বলেন, আমি নিশ্চিতভাবে বলছি আমাদের কেউ অপহরণ করেনি,কেউ চাপ সৃষ্টি করেনি।ভোট হবেনা জানার পর আমরা বাড়িতে ফিরে আসি ও বাড়িতেই আছি।
৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মন্নান বলেন, তৃণমূল ভোটের জন্য সকালে আমরা একত্রিত হয়েছিলাম কিন্তু প্রচার হয়েছে আমাদের নির্যাতন করা হয়েছে।অথচ আমি সুস্থ অবস্থায় সম্মানের সাথেই বাড়িতে ফিরে এসেছি।
এসময় ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কিরণ, ৩নং সভাপতি মোমিনুল হক ও সাধারণ সম্পাদক রায় হরণ দাস, ৪নং সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউসুফ, ৬নং সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, ৭নং ওয়ার্ডের সভাপতি আবদুর রহিম, ৮নং ওয়ার্ডের সভাপতি আবুল বাশার ও সাধারণ সম্পাদক কাজী সাহাব উদ্দিন এবং ৯নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিলনসহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।