সোনাগাজীতে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা বন্ধ ঘোষণার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

আপডেট : March, 9, 2022, 1:41 pm

জাবেদ হোসাইন মামুন->>>
ফেনীর সোনাগাজীতে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা বন্ধ ঘোষণার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে মালিক ও চালকরা। অবশ্যই আন্দোলনের মুখে দাবি মেনে নিয়ে ফের চালু রাখার ঘোষণা দিয়েছেন পৌর মেয়র অ্যাড. রফিকুল ইসলাম খোকন।
বুধবার সকাল সাড়ে নয়টা থেকে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে চালক ও মালিকরা পৌর শহরের জিরোপয়েন্টে জড়ো হয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে। অটোরিক্সা চালক সমিতির সভাপতি মো. শাহাজাহানের সভাপতিত্বে ও সদস্য নুর করিমের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মো. মানিক মিয়া, নুরনবী, মো. রিপন, বেলায়েত হোসেন, মো. মিস্টার, মো. রুবেল, নুর ইসলাম, মো. রনি ও জসিম উদ্দিন প্রমুখ। তারা দাবি করেন সোনাগাজী উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা চালিয়ে কয়েক হাজার পরিবার জীবীকা নির্বাহ করছে। এলাকার চিহ্নিত অপরাধীরা অপরাধ কর্মকান্ড ছেড়ে অটোরিক্সা চালিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে জীবীকা নির্বাহ করছে। সাধারণ মানুষ স্বল্প খরচে বাসা-বাড়িতে নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারছে এবং পণ্য পরিবহন করছে। তাদের প্রশ্ন অটোরিক্সাগুলো যদি অবৈধ হয় তাহলে প্রকাশ্যে বাজারে বিক্রি হয় কি করে? আগে বাজারে বিক্রি বন্ধ করুন, তারপর আমাদের পেটে লাথি মারুন। অটোরিক্সা চালকদের কারণেই সোনাগাজীতে চুরি-ডাকাতি বন্ধ হয়েছে।
রহস্যজনক কোন কারণে যদি অটোরিক্সাগুলো বন্ধ করা হয় তাহলে চালক ও মালিকেরা রাজপথে অবস্থান নেবেন। প্রায় তিন ঘন্টাব্যাপী জিরোপয়েন্ট দখল করে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করায় পৌর শহরে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশদল দুই ঘন্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে যানজট নিরসন করেন। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীরা রাজপথে থাকার অনড় অবস্থানে থাকলে পৌর মেয়র, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যড. রফিকুল ইসলাম খোকন তাদের দাবি মেনে বৈধ অটোরিক্সা চালু রাখার ঘোষণা দেন। মেয়রের ঘোষণায় চালক ও মালিকরা দুপুর ১২টার দিকে তাদের আন্দোলনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। মেয়র খোকন দাবি মেনে তার বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবিক একজন মানুষ। তিনি মানিবক কারণে লক্ষ লক্ষ রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছেন। বাংলাদেশের মানুষেরা কর্ম করে বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে। তিনি কোন মানুষের প্রতি অন্যায় অবিচার করার নির্দেশ দেননি। শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে থাকলে সোনাগাজীতে নির্মানাধীন অর্থনৈতিক অঞ্চলে লক্ষ লক্ষ লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। অটোরিক্সা চালকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, জনদুর্ভোগ সৃষ্ট না করে শৃঙ্খলার সাথে রিক্সা চালাতে হবে। যত্রতত্র পার্কিং না করে যান চলাচল নির্বিঘ্ন করতে হবে। সোনাগাজী পৌরসভা থেকে ১১০০অটোরিক্সা বৈধ লাইসেন্স নিয়েছে বলে দাবি করে বলেন, প্রতিবেশী উপজেলা সহ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে অবৈধভাবে চলাচলরত অটোরিক্সাগুলো পৌর শহরে যানজট সৃষ্টি করে মাঝে মাঝে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে। তাই তিনি সবাইকে দায়ীত্বশীল ভূমিকা রাখার আহবান জানান। উল্লেখ্য; মঙ্গলবার সোনাগাজী পৌরসভার মেয়র পৌর শহরে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ ঘোষণা করলে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেশ কয়েকটি অটোরিক্সা আটক করে। তাৎক্ষণিক চালু রাখার ঘোষণা দিয়ে অটোরিক্সা চালক ও মালিকরা এই আন্দোলন কর্মসূচী পালন করেন। তাদের দাবি মেনে নেয়ায় অটোরিকশা মালিক ও শ্রমিকরা মেয়রের প্রতি ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।